News Title: যেভাবে ঘরোয়া উপায়ে দূর হবে ডাস্ট অ্যালার্জি

ডাস্ট অ্যালার্জির কারণে হাঁচি, কাশি ছাড়াও চোখ-নাক থেকে অনবরত পানি ঝড়ার সমস্যা, শ্বাসকষ্ট বা ত্বকে র‌্যাশও দেখা দিতে পারে। এক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া মুঠো মুঠো অ্যান্টি অ্যালার্জি ওষুধ খাওয়া বিপজ্জনক হতে পারে! তাই ডাস্ট অ্যালার্জির সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে অ্যান্টি অ্যালার্জি ওষুধের বিকল্প হিসেবে কয়েকটি ঘরোয়া উপায় কাজে লাগানো যেতে পারে। 

 

১. বেশি করে সবুজ শাক-সবজি খাওয়া। সবুজ শাক-সবজি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর সঙ্গে অ্যালার্জির প্রবণতা কমাতেও সাহায্য করে। সবুজ শাক-সবজি শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিন, খনিজের (মিনারেল) যোগান দেয়।
  
২. ডাস্ট অ্যালার্জির সমস্যায় গ্রিন টি খাওয়া যেতে পারে। গ্রিন টি-এর অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট উপাদান অ্যালার্জির সমস্যার সঙ্গে লড়তে সাহায্য করে। চোখে লাল ভাব, র‌্যাশ বেরনো ইত্যাদি রুখতে এটি অত্যন্ত কার্যকর।
  
৩. ডাস্ট অ্যালার্জির সমস্যায় ঘি খেয়ে দেখা যেতে পারে। ফল পাওয়া যাবে ম্যাজিকের মতো। ঘি প্রাকৃতিকভাবে যে কোনো ধরনের অ্যালার্জির সমস্যার সঙ্গে লড়াই করতে সক্ষম। এক চামচ ঘি তুলোয় লাগিয়ে সরাসরি র‌্যাশে আক্রান্ত ত্বকে লাগান। ত্বকের জ্বালা ভাব, অস্বস্তি অনেকটাই কমে যাবে। প্রতিদিন ১ চামচ করে ঘি খেতে পারলে ঠান্ডা লাগা বা অ্যালার্জির সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অনেকটাই কমবে।
  
৪. মাথা যন্ত্রণা, বন্ধ নাক, চোখ-নাক দিয়ে জল পড়া ইত্যাদির সমস্যায় একটি পাত্রে গরম পানি নিয়ে তার মধ্যে কয়েক ফোঁটা ইউক্যালিপটাস তেল ফেলে তার ভাপ (ভেপার) নিন। এতে বন্ধ নাক খুলে যাবে, নাকের ভিতরে অ্যালার্জির কারণে হওয়া অস্বস্তিও কমে যাবে।


End of Today's News

ফোনকে জীবাণুমুক্ত রাখার উপায়

আজকাল আমাদের মোবাইল ফোন ছাড়া চলেই না। আমাদের জীবনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ এই মোবাইল ফোন | এই ফোনে বেঁচে থাকে ১৭ হাজারেরও বেশি জীবাণু । এক গবেষণায় দেখা গেছে, ব্যবহারকারীরা দৈনিক গড়ে ৬৭ বার মোবাইল ফোন হাতে নেন। আর এই ফোনে টয়লেট সিটের চেয়েও ১০ গুণ বেশি জীবাণু থাকে। অ্যাপল ও গুগল তাদের সাপোর্ট পেজে ফোনকে জীবাণুমুক্ত রাখার গাইডলাইন দিয়েছে । অ্যাপল উষ্ণ পানিতে একটি শুকনো পরিষ্কার তোয়ালে ভিজিয়ে ফোনের ডিসপ্লে ও ব্যাক প্যানেল মোছার পরামর্শ দিয়েছে । অন্যদিকে গুগল বলছে, কম ক্ষারযুক্ত সাবান পানির মিশ্রণ দিয়ে ফোন পরিষ্কার করলেও কোনো সমস্যা নেই । 


এই প্রক্রিয়ায় আইফোন ৭, আইফোন ৭ প্লাস, আইফোন ৮, আইফোন ৮ প্লাস, আইফোন ১০, আইফোন ১০আর, আইফোন ১০ এস, আইফোন ১০ এস ম্যাক্স, আইফোন ১১, আইফোন ১১ প্রো, আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স, গ্যালাক্সি এস৭, গ্যালাক্সি এস৭ এজ, গ্যালাক্সি এস৮, গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস, গ্যালাক্সি এস৯, গ্যালাক্সি এস৯ প্লাস, গ্যালাক্সি এস ১০, গ্যালাক্সি এস ১০ প্লাস, গ্যালাক্সি ফোল্ড, পিক্সেল ২, পিক্সেল ৩ ও পিক্সেল ৪ মডেলের পানি নিরোধী ফোন পরিষ্কার করা যাবে। 
 
পরিষ্কার করার সময় প্রথমে ফোনটি বন্ধ করতে হবে। এরপর সব অ্যাক্সেসরিজ যেমন ডেটা ক্যাবল বা হেডফোন খুলে নিতে হবে। তারপর পানি ও সাবানের মিশ্রণে পাতলা তোয়ালে বা কাপড় ডুবিয়ে ফোনের চারপাশ মুছে আরেকটি শুকনো কাপড় দিয়ে ফোনটিকে মুছে নিতে হবে। মোছার সময় খেয়াল রাখবেন যেন কোথাও পানি লেগে না থাকে। 
 
একইভাবে সিম কার্ডও পরিষ্কার করা যাবে। সিম ট্রে খুলে চিকন কটন বাড পানি ও সাবানের মিশ্রণে ডুবিয়ে অতিরিক্ত পানি চিপে নিয়ে কার্ডটি পরিষ্কার করা যাবে। এরপর সিম কার্ডটি একটি শুকনো কাপড় দিয়ে ভালোভাবে মুছে দিতে হবে।  এভাবে ফোন পরিষ্কার করে জীবাণুমুক্ত রাখা যাবে। 



Comments




Write a new comment:




//