News Title: বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ১০ লাখ ছাড়াল

প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়েছে। করোনার সার্বক্ষণিক তথ্য রাখা জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ করোনায় মৃত্যু ১০ লাখ ৮২৫ জনে দাঁড়িয়েছে। 

এছাড়া মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৩২ লাখ ৭৯ হাজার ৪৮৮ জন। জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য মতে, করোনায় বিশ্বে মৃত্যু ১০ লাখের মধ্যে প্রায় অর্ধেক মারা গেছে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল এবং ভারতে। 

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি যুক্তরাষ্ট্রে। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৭১ লাখ ৪৮ হাজার ৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৫ হাজার ৬৯ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় স্থানে থাকলেও মৃত্যু বিবেচনায় দেশটির অবস্থান দ্বিতীয়। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৪৭ লাখ ৪৫ হাজার ৪৬৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৪২ হাজার ৫৮ জনের।


End of Today's News

করোনা আক্রান্ত কারও সংস্পর্শে এলে কী করবেন

দেশে দেশে নিজের ভয়াল থাবা বসিয়েছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। নিত্যদিন এই মরণব্যাধির বিষাক্ত ছোবলে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। মহামারিতে রূপ নেওয়া এই ভাইরাসে আক্রান্তের সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছেন বয়স্করা। এ দিকে, নিম্ন রক্তচাপ কিংবা উচ্চ রক্তচাপ দুটোই শরীরের জন্য সমান ক্ষতিকর। তাই মহামারির এই সময়ে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা অত্যন্ত জরুরি।

এ ক্ষেত্রে পটাসিয়াম শরীরের জন্য অন্যতম জরুরি উপাদান। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তাই ডায়েটে পটাসিয়াম রাখাও জরুরি। তবে কলা খেলে পটাসিয়াম ঘাটতি পূরণ হয়। মাঝারি আকারের একটা কলায় পটাসিয়াম থাকে প্রায় ৪২২ মিলিগ্রাম। কিন্তু অনেকেই কলা খেতে পছন্দ করেন না। এখন প্রশ্ন হলো– তাদের পটাসিয়ামের ঘাটতি কীভাবে পূরণ হবে?

ডায়াটিশিয়ান রেশমী রায় চৌধুরী বলেন, কলা না খেলেও শাক, টমেটো, ফলের রস এবং সব রকমের ডালে মিটবে পটাসিয়ামের ঘাটতি। তাই মহামারির মাঝে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে যা খাবেন-

পালংশাক

এই শাকে ভিটামিন এ, সি, কে ছাড়াও রয়েছে ফলিক অ্যাসিড, আয়রন ও ক্যালসিয়াম। এক কাপ পালংশাকে প্রায় ৫৪০ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম থাকে, যা ওজন কমাতেও সাহায্য করে।

ডাবের পানি

এক কাপ ডাবের পানিতে রয়েছে প্রায় ৪০৫ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম। তাই খেতে পারেন ডাবের পানি।

তরমুজ

তরমুজে রয়েছে প্রচুর পানি। হৃদযন্ত্রের সমস্যায় উপকারী তরমুজ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণেও সাহায্য করে। মাত্র এক টুকরো তরমুজে ৩২০ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম থাকে।

আলু

১০০ গ্রাম আলুতে ৪২১ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম। তাই সহজেই অপরিহার্য মৌলের ঘাটতি মেটায় এই সবজি।

বেদানা

টকটকে লাল রঙের এই ফলে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফাইবার, প্রোটিন, ভিটামিন সি, ভিটামিন কে ও ফোলেট। ১০০ গ্রাম বেদানায় পটাসিয়ামের পরিমাণ ২৩৬ মিলিগ্রাম, যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে অত্যন্ত কার্যকর।

লেবুজাতীয় ফল

ডায়াটিশিয়ান রেশমী রায় চৌধুরী জানান, পটাসিয়াম রয়েছে মোসাম্বিতে। ১০০ গ্রাম মোসাম্বিতে রয়েছে ৪৯০ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম। ১০০ গ্রাম কমলালেবুতে রয়েছে ১৮১ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম।

তথ্যসূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা