News Title: বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ১০ লাখ ছাড়াল

প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়েছে। করোনার সার্বক্ষণিক তথ্য রাখা জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ করোনায় মৃত্যু ১০ লাখ ৮২৫ জনে দাঁড়িয়েছে। 

এছাড়া মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৩২ লাখ ৭৯ হাজার ৪৮৮ জন। জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য মতে, করোনায় বিশ্বে মৃত্যু ১০ লাখের মধ্যে প্রায় অর্ধেক মারা গেছে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল এবং ভারতে। 

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি যুক্তরাষ্ট্রে। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৭১ লাখ ৪৮ হাজার ৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৫ হাজার ৬৯ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় স্থানে থাকলেও মৃত্যু বিবেচনায় দেশটির অবস্থান দ্বিতীয়। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৪৭ লাখ ৪৫ হাজার ৪৬৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৪২ হাজার ৫৮ জনের।


End of Today's News

কোভিড-১৯: ব্রাজিলকে পেছনে ফেলে বিশ্বে দ্বিতীয় ভারত

কোভিড-১৯ মহামারী আসন গেড়ে বসেছে প্রতিবেশী দেশ ভারতে। গত কয়েক দিন ধরে ৮০ থেকে ৯০ হাজারের ঘরে ঘোরাফেরা করছে সংক্রমণের সংখ্যা। এরই ফলে ব্রাজিলকে পেছনে ফেলে করোনা সংক্রমণে ভারত এখন বিশ্বে দ্বিতীয়।
করোনা সংক্রমণে ভারতের সামনে এখন কেবল যুক্তরাষ্ট্র। তবে যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে দৈনিক দ্বিগুণ সংক্রমণের এ ধারা অব্যাহত থাকলে করোনায় সবচেয়ে বিধ্বস্ত ওই দেশটিকেও ছাড়িয়ে যেতে পারে বিশ্বের দ্বিতীয় জনবহুল এ দেশ।
বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃত্যু ও সংক্রমণের হিসাব রাখা আন্তর্জাতিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্যানুযায়ী, সোমবার সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত করোনাভাইরাসে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা ভারতে মোট ৪২ লাখ ৪ হাজার ৬১৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৭১ হাজার ৬৮৭ জন।
তৃতীয় স্থানে নেমে যাওয়া ব্রাজিলে সংক্রমিত হয়েছে ৪১ লাখ ৩৭ হাজার ৬০৬ জন। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে মারা গেছেন ১ লাখ ২৬ হাজার ৬৮৬ জন।
তালিকার শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬৪ লাখ ৬০ হাজার ২৫০ জনের। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১ লাখ ৯৩ হাজার ২৫০ জন।
এদিকে ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৯১ হাজার ৭২৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। একই সময়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৮ জন।
এর আগের ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হন ৯০ হাজার ৬৩৩ জন, যা দৈনিক সংক্রমণে বিশ্বরেকর্ড ছিল। আর মারা যান ১ হাজার ৬৫ জন।
ভারতে করোনা পজিটিভ রোগীর সংখ্যা ৩০-৪০ লাখ হতে সময় লেগেছে মাত্র ১৩ দিন। করোনা বিধ্বস্ত যুক্তরাষ্ট্রেও সংক্রমণে এর চেয়ে বেশি সময় লেগেছিল।
এ ছাড়া ওয়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্যানুযায়ী, করোনার বৈশ্বিক সংক্রমণ প্রায় ২ কোটি ৭২ লাখ ৯২ হাজার ৫৮৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৮ লাখ ৮৭ হাজার ৫৫৪ জন। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ কোটি ৯৩ লাখ ৭৭ হাজার ২৬৮ জন।