বিশ্বে করোনায় প্রাণহানি ১০ লাখ ৬৭ হাজার

বিশ্বে মহামারী করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত ১০ লাখ ৬৭ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন তিন কোটি ৬৮ লাখের বেশি।

এ ছাড়া সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি সাড়ে ৫৫ লাখের বেশি মানুষ।

শনিবার জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টার এ তথ্য জানিয়েছে।

তাদের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ কোটি ৬৮ লাখ দুই হাজার ৭০৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১০ লাখ ৬৭ হাজার ১০১ জনের। এ ছাড়া সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৫৫ লাখ ৭৮ হাজার ৬২৫ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৬ লাখ ৬৩ হাজার ৩৩ জন এবং মারা গেছেন ২ লাখ ১৩ হাজার ৭৩৯ জন। এ ছাড়া সুস্থ হয়েছেন ৩০ লাখ ৩৯ হাজার ৮৯ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ব্রাজিলে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ লাখ ৫৫ হাজার ৮৮৮ জন, মারা গেছেন এক লাখ ৪৯ হাজার ৬৩৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৪৫ লাখ দুই হাজার ৮৫৪ জন।

সংক্রমণের দিক থেকে দ্বিতীয় ও মৃত্যুর দিক থেকে তৃতীয়তে থাকা ভারতে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৯ লাখ ছয় হাজার ১৫১ জন, মারা গেছেন এক লাখ ছয় হাজার ৪৯০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৫৯ লাখ ছয় হাজার ৬৯ জন।

মৃত্যুর সংখ্যার দিক থেকে চতুর্থতে রয়েছে মেক্সিকো। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৮৩ হাজার ৪৯৭ জন মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন আট লাখ ১০ হাজার ২০ জন। এ ছাড়া সুস্থ হয়েছেন ছয় লাখ ৮৭ হাজার ১২৩ জন।

ভাইরাসটির সংক্রমণস্থল চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ৯০ হাজার ৭৫১ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ৭৩৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৮৫ হাজার ৬৪০ জন।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে।

গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বাংলাদেশে প্রথম কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হন ৮ মার্চ এবং এ রোগে আক্রান্ত প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।

করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে মোট ৫ হাজার ৪৪৭ জন কোভিড রোগীর মৃত্যু হয়েছে। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৭৫ হাজার ৮৭০ জন।

এছাড়া এখন পর্যন্ত সুস্থ ২ লাখ ৮৯ হাজার ৯১২ জন।